সৌদি আবাসিক হোটেলে চাকরি ও সৌদি আবাসিক হোটেল বেতন

সৌদি আবাসিক হোটেলে চাকরি

সূচীপত্রঃসৌদি আবাসিক হোটেলে চাকরি-বাংলাদেশিরা বিশেষ করে বেশিরভাগ মানুষ হলো মদ্যপ্রাচ্যে । কারণ আমাদের দেশের জন্যে খুবই সহজ পন্থাতে এই মদ্যপ্রাচ্যে যাওয়া যায় এবং কাজের চাহিদা ও প্রচুর। তেমন করে সৌদি আরবে ও কাজের কথা নিয়ে আজকের এই আর্টিকেল। সৌদি আবাসিক হোটেলে চাকরি কথা নিয়ে আমরা আজকে আলোচনা করবো । 


সাথে আরো কিছু বিষয় নিয়ে আমরা কথা বলবো, সৌদি আরবে আবাসিক হোটেলে চাকরির যোগ্যতা কি, সৌদি আরব আবাসিক হোটেল ভিসা, সৌদি আরবে আবাসিক হোটেল বেতন কত, সৌদি আবাসিক হোটেলে চাকরির জন্যে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র কি কি এই নিয়ে আজকের আয়োজন । সাথেই থাকবেন আশা করি আপনাদের উপকারে আসবে । 

সৌদি আরব আবাসিক হোটেলে চাকরির ভিসার জন্যে কি কি লাগে  

সৌদি আরবে আবাসিক হোটেলে চাকরির ভিসার জন্যে কি কি লাগে এটি অনেকের প্রশ্ন । মানুষ দিন দিন বিদেশে পাড়ি জমানোর জন্যে নিয়ত চেষ্টায় থাকেন । বর্তমানে আমাদের দেশে যোগ্য ব্যক্তির যোগ্য চাকরির বড় অভাব । সেক্ষেত্রে ভাল মানের শিক্ষিত ব্যক্তিরা এখন বিদেশে পাড়ি জমাচ্ছেন বিশেষ করে সৌদি আরবে । 


সৌদি আরব আবাসিক হোটেলে চাকরির ভিসার জন্যে যা যা দরকার সেই সম্পর্কে বলার চেষ্টা করছি । নিম্নোক্ত কাগজপত্র গুলি থাকলে আপনি সহজে সৌদি আরব আবাসিক হোটেলে চাকরির ভিসার জন্যে আবেদন করতে পারবেন । 


  • বৈধ পাসপোর্ট ( অন্তত ১৮ মাস মেয়াদ আছে)
  • জাতীয় সনদ পত্র /এন আই ডি
  • পুলিশ ক্লিয়ারেন্স
  • শিক্ষাগত যোগ্যতার সনদ 
  • শারীরিক ফিটনেস সার্টিফিকেট 
  • ছবি


আরও পড়তে পারেনঃ দক্ষিন কোরিয়া টুরিস্ট ভিসা পাওয়ার নিয়ম

সৌদি আবাসিক হোটেলে চাকরির যোগ্যতা কি 

আগেই একটু স্পষ্ট করে দিই সেটা হচ্ছে সৌদি আবাসিক মানে হলো সৌদি আরব আবাসিক হোটেলের চাকরি নিয়ে আজকে কথা হবে। সৌদি আবাসিক হোটেলে চাকরি করতে অনেক কিছু যোগ্যতার প্রয়োজন হয় । 

এক প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষা তার উপরে হোটেলে চাকরি করার অভিজ্ঞতা। তার সাথে প্রয়োজন বিনয়, ভদ্রতা এবং মানুষের সাথে বন্ধুত্বপুর্ন কথা বলার দক্ষতা। আপনার পোশাক আশাকের উপরও অনেক কিছু নির্ভর করে সৌদি আবাসিক হোটেলের চাকরিতে । 


প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষার মধ্যে প্রয়োজন বিশেষ করে মাধ্যমিক বা উচ্চমাধ্যমিক পাশ সনদ পত্র। অর্থাৎ গেস্টদের (অতিথিদের)সাথে ইংরেজিতে কথা বলার মত দক্ষতা। এর সাথে প্রয়োজন শারীরিক গঠন । 


দেখতে অন্তত সুঠাম এবং সুন্দর দেহের অধিকারী মানুষদের বেশি প্রাধান্য দেওয়া হয় । যোগ্যতা একেক হোটেলে একেক রকমের। তবে তিন তারকা হতে শুরু করে পাঁচ তারকা হোটেল গুলুতে হোটেল ম্যানেজমেন্ট এর সনদের চাহিদা বেশি থাকে । 


কারণ এই তারকা হোটেলগুলিতে বিশ্বের বিভিন্ন জায়গা থেকে পর্যটন আসে তাই এই হোটেলগুলিতে যোগ্যতা ও বেশি প্রয়োজন। এর পিছনের কারণ হলো এই তারকা হোটেলগুলিতে বেতনের অবস্থা আকাশ চুম্বি । 


এই বেতনের কারণে সেই হোটেলগুলিতে একদম A to Z বিবেচনা করে সৌদি আবাসিক হোটেলের চাকরি দিয়ে থাকে। তবে এর নিচের হোটেল গুলিতে উপরোক্ত বর্ণনা অনুযায়ী যোগ্যতা হলেও চলে ।  

সৌদি আবাসিক হোটেলে চাকরির জন্যে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র

এতক্ষন সৌদি আবাসিক হোটেলে চাকরির যোগ্যতা নিয়ে কথা বলেছি । এবার আসি সৌদি আবাসিক হোটেলে চাকরির জন্যে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র গুলি কি লাগতে পারে সেই নিয়ে কথা বলি। 

সৌদি আবাসিক হোটেলে চাকরির জন্যে কিছু দরকারি কাগজপত্র দেওয়া প্রয়োজন বা দেওয়া জরুরি। যেগুলি প্রত্যেক আবাসিক হোটেলে চেয়ে থাকে বা জমা দিতে হয়। 


  • পুলিশ ক্লিয়ারেন্স
  • ফিটনেস রিপোর্ট 
  • শিক্ষাগত যোগ্যতার সনদ
  • হোটেল ম্যানেজমেন্টের সনদ (৩ থেকে ৫ তারকা হোটেল এর ক্ষেত্রে)
  • ভাল ইংরেজিতে কথা বলার দক্ষতা
  • অন্তত দুই বছরের কাজের অভিজ্ঞতার সার্টিফিকেট
  • চারিত্রিক সনদপত্র কমিশনার/চেয়ারম্যান কর্তৃক


আরও পড়তে পারেনঃ কাতার ফ্রি ভিসার দাম কত

সৌদি আবাসিক হোটেলে চাকরি

সৌদি আবাসিক হোটেলে চাকরির জন্যে আমাদের দেশ থেকে অনেক মানুষ লবিং করছে বিভিন্ন মাধ্যমে থেকে। কেউ এজেন্সির মাধ্যেম কেউবা প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে আবার কেউবা আত্মীয় স্বজনের মাধ্যমে । 

সৌদি আবাসিক হোটেলে চাকরির মধ্যে বিশেষ করে অনেক সুযোগ সুবিধা সহ ভাল অর্থ উপার্জন করা যায়। এই কারণে বাংলাদেশের মানুষ সৌদি আবাসিক হোটেলের চাকরি করার চেষ্টায় থাকেন । 


কারণ বিভিন্ন দেশের মানুষ এই সৌদি আরবে যায় ধর্মীয় ভাবে হজ্ব করার জন্যে।  আবার অনেকে পর্যটন যায় বেড়ানোর জন্যে। তাছাড়াও উন্নত দেশ হিসেবে অনেকে সৌদিতে ব্যবসা বাণিজ্যের কারণে ও এসে থাকে । 


সেক্ষেত্রে সৌদি আবাসিক হোটেলে চাকরির চাহিদাও রয়েছে প্রচুর। তার সাথে ভাল বেতন ও পাওয়া যায়। আরেকটি ব্যাপার হলো এই আবাসিক হোটেলের চাকরি গুলির মধ্যে অনেক সময় অনেক মানুষ সুঠাম দেহের এবং সুন্দর চেহারার মানুষদের অন্যত্র নিয়ে যায়। বিশ্বের অন্য প্রান্তে ভাল চাকরি করানোর জন্যে ।


খুবই সাচ্ছন্দ বোধে এই সৌদি আবাসিক হোটেলের চাকির গুলি করা যায়। তাই এই হোটেলের চাকরিগুলির জন্যে মানুষ হন্য হয়ে খুঁজে বেড়ায় । 

সৌদি আবাসিক হোটেল বেতন

সৌদি আরবে যারা হোটেলের ভিসা যেতে যাচ্ছেন কিন্তু বেতন সম্পর্কে জানেননা তাদের জন্যে এই আর্টিকেল আমি মনে করি খুবই প্রয়োজনীয় হতে পারে বন্ধুরা। অনেকে সৌদি আবাসিক হোটেলে চাকরির জন্যে যেতে চাচ্ছেন অথচ বেতনের কথা জানার ইচ্ছা রয়েছে তাদের জন্যে আমরা বলার চেষ্টা করছি । 

সৌদি আবাসিক হোটেল বেতন ১২০০ রিয়েল। যা বাংলাদেশী টাকায় পড়ে প্রায় চল্লিশ হাজার টাকা পর্যন্ত সেটি কিন্তু আলোচনার উপর ভর করে এর চেয়ে বেশি হতে পারে । 


তাও আবার ৮ ঘন্টা জেনারেল ডিউটির জন্যে। এর সাথে আপনি যদি ওভার টাইম (ওটি ) করেন তাহলে আরো বৃদ্ধি পাবে আপনার বেতনের উপর ভিত্তি করে । দুই বছরের জন্যে ভিসা পাবেন । থাকার জন্যে কোম্পনী ব্যবস্থা করে দিয়ে থাকে কিন্তু খাওয়া নিজের। 


কোম্পানি দুই বছর পর আপনার টিকেট নিজ দায়িত্বে বহন করবে। তবে এই সৌদি আবাসিক হোটেলের জন্যে ২১ থেকে ৩০ বছরের ছেলেদের বেশি প্রাধান্য দিয়ে থাকে। 

শেষ কথা 

সৌদি আবাসিক হোটেলে চাকরি নিয়ে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র থেকে শুরু করে ভিসার জন্যে কি কাগজ লাগতে পারে এবং হোটেলের চাকরির বেতন কত সব বিষয় নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে ।

এতে করে সৌদি আবাসিক হোটেলে চাকরির জন্যে জানার আর কিছু বাকি আছে বলে মনে হয় না । তারপর ও যদি সংশয়ে ভুগে থাকেন তাহলে ভালো কোন এজেন্সির সাথে যোগাযোগ করে জেনে নিতে পারবেন। আজ এই পর্যন্ত ভালো থাকবেন ।

আপনার জন্যেঃ  সরকারিভাবে ইউরোপ যাওয়ার উপায়  

এই পোস্টটি পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন

পূর্বের পোস্ট দেখুন পরবর্তী পোস্ট দেখুন
এই পোস্টে এখনো কেউ মন্তব্য করে নি
মন্তব্য করতে এখানে ক্লিক করুন

সবারজন্যে.কম এর নীতিমালা মেনে এ কমেন্ট করুন। প্রতিটি কমেন্ট রিভিউ করা হয়।

comment url

এইটা একটি বিজ্ঞাপন এরিয়া। সিরিয়ালঃ ১