শরীর সুস্থ রাখার জন্য ব্যায়াম এবং শরীর সুস্থ রাখার প্রয়োজনীয়তা কি ?

শরীর সুস্থ রাখার জন্য ব্যায়াম

প্রত্যেকটা মানুষের সুস্থ থাকা জরুরি। কারণ স্বাস্থ্যই সকল সুখের মূল। তাই শরীর সুস্থ রাখার জন্য ব্যায়াম করা প্রতিটা মানুষের প্রয়োজন । যেখানে শরীর সুস্থ রাখার জন্যে বিদেশিরা নানা রকম পদ্বতি অবলম্বন করে সেখানে আমাদের দেশের মানুষেরা বেশিরভাগ সকাল ১০টা পর্যন্ত ঘুমেই কাটিয়ে দেয়।
 
তাহলে বুজুন আমরা কতটা অলস বাঙালি। যদিও সব মানুষই না। কিছু কিছু মানুষ সাস্থ্য সম্পর্কে খুব সচেতন। আমি তাদের কথা বলছি না ।সচেতন মানুষের  বিপরীতদের  কথায় বলছি । আপনারা হয়ত জানেন হয়ত যে বিশ্ব সাস্থ্য সংস্থা  বিশ্ব সাস্থ্য দিবস হিসেবে একটি দিন ও পালন করে থাকে । 

সূচীপত্র আজকের এই শরীর সুস্থ রাখার জন্য ব্যায়াম সম্পর্কে আমরা ধারণা দেওয়ার চেষ্টা করবো । আরো চেস্টা করব কেন শরীর সুস্থ রাখার প্রয়োজন রয়েছে ? 


কোন কোনো উপায়ে আপনি প্রতিদিন সুস্থ থাকতে পারবেন এবং কেন সুস্থ থাকা প্রয়োজন  সাথেই থাকুন কারণ আমরা এই স্বাস্থ্য বিষয় নিয়ে অনেকদূর যাওয়ার চেষ্টা করবো ।

কেন শরীর সুস্থ রাখবেন নিজের জীবনের জন্যে 


স্বাস্থ্যই সকল সুখের মূল এই কথা আমরা সবাই জানি। কিন্তু মানি না। মানতে কষ্ট হয়। বর্তমান সময়ে মানুষের গড় আয়ু খুব কম। কিন্তু তাও যদি আপনি অসুস্থ শরীর নিয়ে জীবন যাপন করেন।  তাহলে একটু ভেবে দেখুন তো আমরা কত কষ্টের মধ্যে বসবাস করবো। 


শরীর সুস্থ রাখবেন কারণ হচ্ছে অসুস্থ শরীর মৃত্যু সমতুল্য। আর সুস্থ শরীর হলো নতুন দিগন্তের মতো। এখানে বলা রাখা ভালো যে, মৃত্যু মানে হলো একবার দেহ থেকে প্রাণ বেরিয়ে যাওয়াকে বলে না।


 বেঁচে থাকতে আপনি রোগগ্রস্ত শরীর নিয়ে বেঁচে থাকাকে জীবিত বলে না। সেটা কে বলে প্রতিদিন মৃত্যু। আর আপনি সুস্থ শরীর নিয়ে বেঁচে টাকা বলে জীবিত। 


শরীর সুস্থ রাখবেন শুধু নিজের জন্যে নই। পরিবারের জন্যে। কারণ আমাদের একজনের উপর অনেক জনের জীবন জীবিকা নির্ভর করে থাকে। সব দিকদিয়ে বিবেচনা করে দেখলে দেখবেন আপনি সুস্থ থাকাটা এবং নিজেকে সুস্থ রাখাটা আমাদের জন্যে কতটা জরুরি। 

শরীর সুস্থ রাখতে হলে আমাদের কি কি করতে হবে


শরীর সুস্থ রাখতে হলে আমাদেরকে একটু সতর্কতা অবলম্বন পূর্বক ব্যায়াম করতে হবে ভাল আহার করতে হবে এবং নিয়মিত নিজের জীবনকে পরিচালিত করতে হবে। চলুন এই সম্পর্কে আরো একটু গভীরভাবে জেনে আসি 

ব্যায়াম করা 


প্রতিদিন নিয়ম করে আপনাকে ব্যায়াম করতে হবে। বেশি নয় একেকটি ব্যায়াম ৫ মিনিট কিংবা ৭ মিনিট করে করলেই হয় । ব্যায়াম সম্পর্কে আরো ভালো করে ধারণা দেওয়ার চেষ্টা করবো। 

কারণ শরীর সুস্থ রাখার জন্যে ব্যায়াম একটি গুরুত্বপূর্ণ দিক। শারীরিক ব্যায়াম শুধু মানুষের শরীরকেই সুস্থ রাখে না মনকে ও ভালো রাখে। প্রদিনের কাজের স্পৃহা বাড়িয়ে দেয়। এই ব্যায়াম হলো মৃত সঞ্জীবনীর মত।  

ভাল আহার করা 


ভাল আহার করা ও কিন্তু শরীর সুস্থ রাখার একটি মাধ্যম । নিয়মিত ও পরিমিত আহার মানুষের শারীরিক সুস্থতার একটি অঙ্গ । তাই টিক মতো ভাল আহার করবেন। ভাল আহার বলতে যে আহার বা খাদ্য আপনার শরীরে পুষ্টির যোগান দেয় সেই সব আহার। 


তারমানে যে আহার গুলি করলে আপনার শরীরে রোগের সৃষ্টি হবে সেই সব আহার থেকে আপনি বিরত থাকুন । যেমন দুর্গন্ধ, বাসি খাবার বা পঁচা খাবার থেকে বিরত থাকবেন। 

জীবনকে সঠিকভাবে পরিচালিত করুন 


নিয়মিত জীবন ধারণ ও সুস্থ শরীরের জন্যে একটি অংশ। নিয়মিত বলতে আপনি  প্রত্যহ খুব সকালে ঘুম থেকে উঠা এবং নিয়মিত ঘুমাতে যাওয়া নিয়মিত ও পরিমিত আহার করা এই সব ও হচ্ছে একজন মানুষের শরীর রক্ষার মাধ্যম।


আরো পড়ুনঃ

শরীর সুস্থ রাখার জন্যে গুরুত্বপূর্ন  ব্যায়াম

শরীর সুস্থ রাখার জন্যে গুরুত্বপূর্ণ ব্যায়াম সম্পর্কে অনেকে অনেক ভাবে বলেছে। তবে আমি সুস্থ রাখার ব্যায়াম সম্পর্কে ৫ টি গুরুত্বপূর্ণ ধারনা দেঅয়ার চেস্টা করব । এই ব্যায়ামগুলো নিয়মিত করলে আপনি অবশ্যই সুস্থ থাকবেন দীর্ঘদিন। চলুন তাহলে আলোচনা করা যাক। 

শরীর সুস্থ রাখার জন্য ব্যায়াম

বুকডন


হৃদপিন্ড ,মেরুদন্ড এবং একটু বয়সে কোমরের ব্যথা কুঁজো হওয়া থেকে রক্ষা পেতে আপনি এই বুকডন ব্যায়াম টি করতে পারেন। এটি একটু কস্টকর বলে মানুষেরা করতে চায় না। 


এই বুকডন মানুষের শরীরে অসাধারণ সব পরিবর্তন ঘটায়। যা আপনি কল্পনাও করতে পারবেন না। এই বুকডনের মাধ্যমে আপনার শরীরের পেশী শক্তি ও খুব মজবুদ হয়। এই ব্যায়ামে আপনার একগেয়েমি ও কাটবে।

দড়ি লাফ


ছোট কালে আমরা কত দড়ি লাফ খেলেছি আবার বার্ষিক পরীক্ষার পর স্কুলের প্রতিজোগিতায় এই দড়ি লাফ দিয়ে ও অনেক পুরুস্কার এনেছি। কিন্তু এই দড়ি লাফ যে আমাদের শরীরের সুস্থ রাখার ক্ষেত্রে এত গুরুত্বপূর্ণ আমরা কিন্তু তা জানতাম না। 


যদিও আমরা খেলার চলে এই দড়িলাফ খেলতাম কিন্তু সেটা আমাদের অকপটে ব্যায়াম হত শরীরের জন্যে আগে বুজতাম না। এই দড়ি লাফ ও শরীরের জন্যে অপরিহার্য একটি অংশ। এটি যেকোন অল্প জায়গায় করা যায়। 


এই দড়ি লাফে মানুষের শরীরে অনেক ক্যালোরি পুড়ে যায় যা মানব শরীরের জন্যে অত্যন্ত উপকারী। এবং এই ব্যায়ামটির সুবিধা হচ্ছে আপনি প্রতিদিন যেকোনো জায়গায় করতে পারেন। 

সাঁতার


রক্তচাপ কমানো, হৃদপিন্ড সবল এবং স্বাসপ্রস্বাসের ক্ষমতাকে উন্নত করতে সাঁতার একটি প্রয়োজনীয় ব্যায়াম শরীরকে সুস্থ রাখার জন্যে । কারণ এতে মানুষের শরীরের নানা পেশী খুব শক্তি লাভ করে । দশ মিনিট করে সাঁতার কাটলে আপনার শরীর অনেকটা উন্নতি লাভ করবে । আমাদের শহরের জীবনে সাঁতার কাটার জন্যে বেশি সুযোগ আমরা পাই না। 


তবে সেক্ষেত্রে পরিবারের সবাইকে নিয়ে গ্রামে যাওয়া যায় বা কাছে কোনো সুইমিং পুলে আপনি সাঁতার কাটার মত কাজটি করতে পারেন। এটি একটি দারুন ও মজার কাজ। এটি একদিক দিয়ে আপনাকে বিনোদন ও দেবে আবার শরীর সুস্থ রাখার কাজটিও  করবে। 

দৌড়ানো


উন্নত বিশ্বের প্রায় ৭০ ভাগ মানুষ দৌড়ানোর অভ্যাস করেন। তারা জানেন সুস্থ থাকতে চাইলে দৌড় একটি প্রাথমিক ব্যাপার। দৌড়ানো একটি অতুলনীয় ব্যায়াম শরীরকে সুস্থ রাখার জন্যে। কারণ এই দৌড়ানো একটি বহুমুখী সুবিধা দেয়।


যেমন মানসিক চাপ কমায়,হৃদপিন্ড সুস্থ রাখে আবার শরীরের অবসাদ দূর করা পর্যন্ত অনেক কিছু সুবিধা দিয়ে থাকে। প্রতিদিন আপনি নিয়ম করে সকাল বেলা অথবা বিকেল বেলা দৌড়াতে পারেন কিছুক্ষন। 


শরীর চর্চার একটি অপরিহার্য মাধ্যম হলো এই দৌড়ানো। নিত্যদিনের সঙ্গী করে নিতে পারেন এই দৌড়ানোকে। কারণ এই দৌড়ানো মানুষের শরীরের মেদ কমায় আপনার পায়ের পেশির ক্ষমতা বৃদ্বি করে এই দৌড়। 


তাই প্রতিদিন এই দৌড়ানোকে সঙ্গী করা বাঞ্চনীয়। আপনি প্রথমে হালকা জগিং দিয়ে এই দৌড়ানোর ব্যায়ামটি শুরু করতে পারেন।  

সাইকেল চালানো


অনেককে দেখবেন সংঘবদ্ব হয়ে সাইকেল চালাতে। শরীর সুস্থ রাখার জন্যে ব্যায়ামের মধ্যে সাইকেল চালনো একটি প্রয়োজনীয় এবং গুরুত্বপূর্ণ ব্যায়াম। এটি আমাদের সনাতন পদ্বতির মতো। শৈশবে আমরা সাইকেল চালাইনি এমন মানুষ পাওয়া ভার।


 কিন্তু এখন এই সাইকেল চালানো আমাদের শরীরের জন্যে প্রয়োজনীয় অবস্থা হয়েছে। এই সাইকেল চালানোর মাধ্যমে আমাদের শরীরে সমস্ত অঙ্গগুলি নড়াচড়া করে। আবার হাতের পায়ের পেশিগুলির জট মুক্ত করে। 


ওজন কমানোর মত কাজটিও এই সাইকেল চালানোর মাধ্যেম আমরা করতে পারি। প্রতিদিন নিয়মিত অল্প সময় ধরে সাইকেল আপনি চাইলে চালাতে পারেন। কারণ শরীরকে সুস্থ রাখতে চাইলে আপনি এই সাইকেল চালানোর ব্যায়ামের কাজটি আপনি করতে পারেন। 

শরীর সুস্থ রাখার কিছু গোপনীয় টিপস 


শরীর সুস্থ রাখতে হলে ব্যায়ামের তুলনা অপরিসীম। এই অভাব আপনি অন্য কিছু দিয়ে পূরণ করতে পারবেন না। শরীর সুস্থ রাখতে নই শুধু, মানসিক সুস্থ থাকতে ও ব্যায়াম আমাদের জন্য জরুরি। 


শরীর সুস্থ রাখার ক্ষেত্রে গোপনীয় টিপস হলো মেরুদন্ড সোজা রাখা। আমাদের সকল কিছু এই মেরুদন্ড দিয়ে প্রবাহিত হয়। যাদের প্রতিদিন অন্তত ১০ মিনিট মেরুদন্ড সোজা থাকে। আমি বলব তাদের কাছে সহজে কোনো শারীরিক ব্যাধি আসবে না। 


প্রতিদিন অন্তত কিছু সময় ধরে আপনি মেরুদন্ড সোজা হয়ে বসুন। দেখবেন আপনার শারীরিক উন্নতি ও মানসিক উন্নতি কিভাবে হয়। এই মেরুদণ্ডের নিয়মিত যদি ব্যায়াম, আপনি করেন তাহলে মানসিক অবসাদ এবং শারীরিক যন্ত্রনা থেকে আপনি মুক্ত হবে। 

শেষ কথা 


শরীর সুস্থ রাখার জন্যে ব্যায়ামের প্রয়োজনীয়তা আমরা সবাই বুজি। কিন্তু করতে চাই না। উন্নত স্বাস্থ্য চাইলে ব্যায়ামকে নিত্যদিনের সাথী করতে হবে। এবং প্রত্যেকদিনের আহার কে পরিমিত করতে হবে।


 যদি দীর্ঘ সময় যদি আপনি বেঁচে থাকতে চান। উপরের বর্ণিত সকল তথ্য থেকে একটিও যদি আপনি পালন করেন তাহলে আপনার আর এই শারীরিক দুশ্চিন্তা করতে হবে না।  

এই পোস্টটি পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন

পূর্বের পোস্ট দেখুন পরবর্তী পোস্ট দেখুন
এই পোস্টে এখনো কেউ মন্তব্য করে নি
মন্তব্য করতে এখানে ক্লিক করুন

সবারজন্যে.কম এর নীতিমালা মেনে এ কমেন্ট করুন। প্রতিটি কমেন্ট রিভিউ করা হয়।

comment url

এইটা একটি বিজ্ঞাপন এরিয়া। সিরিয়ালঃ ১