পাকা পেঁপে খাওয়ার উপকারিতা ও অপকারিতা এবং গর্ভাবস্থায় পাকা পেঁপে খেলে কি হয়

 

পাকা পেঁপে খাওয়ার উপকারিতা ও অপকারিতা

পাকা পেঁপে খাওয়ার উপকারিতা ও অপকারিতা - নিত্যদিন আহারের সাথে কত রকমের ফল আমাদের খাবারের মেনুতে থাকে। কারণ আমরা জানি ফলমূল আমাদের শরীরের জন্যে অনেক রকমের উপকার সাধন করে। ঠিক একই রকমের ফল নিয়ে আমরা কথা বলব। আজকের বিশেষ কথা হচ্ছে পাকা পেঁপে খাওয়ার উপকারিতা ও অপকারিতা। প্রত্যেক ফলের বিশেষ কিছু কিছু না কিছু গুন্ থাকে। 


পোস্টসূচীপত্রঃপাকা পেঁপের গুন নিয়ে আমরা আজকে বিশেষ ভাবে আলোচনা করবো। এবং সাথে থাকবে পাকা পেঁপে খেলে কি হয়, পাকা পেঁপে খেলে কি গ্যাস হয়, পাকা পেঁপে খেলে কি ওজন বাড়ে, কাচাঁ পেঁপে খাওয়ার নিয়ম, গর্ভাবস্থায় পাকা পেঁপে খেলে কি হয়  এই নিয়ে আজকের আলোচনা। তাই সাথে থাকবেন এবং সহযোগিতা করবেন।  


পাকা পেঁপে খাওয়ার উপকারিতা


পাকা পেঁপে আসলে কাঁচা থাকতে এটি কাঁচা সবজি রুপে সবাই তরকারি করে সবাই খেয়ে থাকে। আবার যখন এটি পাকে তখন এটি সুস্বাধু একটি ফল। একই পেঁপে কাঁচা এবং পাকা দুটিতেই কিন্তু উপকারী। তাই আজকের পাকা পেঁপে খাওয়ার উপকারিতা ও অপকারিতা এই টপিক হিসেবে পাকা পেঁপে খাওয়ার মধ্যে অনেক উপকারিতা রয়েছে তা আসলে মুখে বলে শেষ করা যাবে না। তবু ও কিছু উপকারিতা আমরা কিছু টপিকের মাধ্যমে বলার চেষ্টা করবো। চলুন তাহলে আমরা জেনে আসি পাকা পেঁপে আমাদের কি কি উপকার করে। 


পাকা পেঁপে খাওয়ার উপকারিতা ও অপকারিতা


পেটের সমস্যায়

পাকা পেঁপে খাওয়ার উপকারিতা ও অপকারিতা মধ্যে উপকারিতার ক্ষেত্রে পেটের সমস্যার জন্যে পাকা পেঁপে খুব ভাল একটি খাবার। যাদের পেটের হজমের সমস্যা রয়েছে তাদের জন্যে একটি একটি উপকারী ফল।  কারণ এই পাকা পেঁপের মধ্যে থাকা এনজাইম মানুষের পেটের হজমের খুব ভাল কাজ করে। 
এই এনজাইমকে প্যাপাইন বলে। এবং এই পাকা পেঁপের মধ্যে উচ্চ মাত্রার ফাইবার এবং পানি রয়েছে যা কোষ্ঠকাঠিন্যের জন্যে ও খুব উপকারী। তাই পেটের সমস্যার জন্যে প্রতিদিন পাকা পেঁপে খেতে পারেন। 

হার্টের সমস্যায়

প্রতিদিন আমাদের হার্টের মধ্যে রক্ত চলাচল করে রক্ত নালীদিয়ে। এই রক্ত নালীতে কোন ময়লা জমে না থাকার জন্যে বা রক্ত নালী পরিষ্কার করার জন্যে এই পাকা পেঁপে খুব কার্যকর। কারণ এই পাকা পেঁপের মধ্যে পটাশিয়াম এবং ফাইবার ও আরো অনেক রকম ভিটামিন এই রক্ত নালী পরিষ্কারের মধ্যে দিয়ে আপনার হার্ট খুব ভাল রাখে।  

অ্যাজমার সমস্যায়

আমাদের দেশে কম বেশি অনেক মানুষের মধ্যে অ্যাজমা রয়েছে। এই অ্যাজমার সমস্যার জন্যে পাকা পেঁপে একটি প্রয়োজনীয় এবং গুরুত্বপূর্ণ একটি সুস্বাধু ফল।  এই পাকা পেঁপে তে বিটা ক্যারোটিন থাকার ফলে এটি অ্যাজমা রুগীদের জন্যে বিশেষ একটি ভূমিকা পালন করে। তাই যাদের মধ্যে এই অ্যাজমা রয়েছে তারা প্রতিদিন পাকা পেঁপে খেলে অ্যাজমা সমস্যা থেকে অনেকাংশে রক্ষা পাই ।  

ক্যান্সার সমস্যায়

আমরা সবাই জানি ক্যান্সার একটি মরণ ব্যাধি রোগ। বিশেষ করে যেসব পুরুষদের প্রোস্টেট ক্যান্সার হয় তাদের মরণব্যাধি এই ক্যান্সার থেকে রক্ষা করতে এই পাকা পেঁপে খুব উপকারী। কারণ এই পাকা পেঁপের মধ্যে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট থাকে। 


যা ক্যান্সার প্রতিরোধ করতে খুবই কার্যকরী ভূমিকা পালন করে। তাই প্রতিদিনের তালিকার মধ্যে এই পাকা পেঁপে রাখাটা খুব জরুরি।  বিশেষ করে যাদের মধ্যে ক্যান্সার রয়েছে।  


হাড় সমস্যায়


এই শরীরের মধ্যে যা ভর করে আছে তা হলো হাড়। হাড় মানব দেহের শক্ত ভিদ । এই শক্ত ভিদ ঠিক রাখতে পাকা পেঁপে খুব গুরুত্বপূর্ন। কারণ এই পাকা পেঁপের মধ্যে থাকে ভিটামিন কে (K)। যা মানব দেখার ক্যালসিয়ামকে শোষণ করার জন্যে  দারুন দায়িত্ব পালন করে।  অস্টিওপোরেসিস নামক হাড়ের সমস্যায় যারা ভুগে তারা প্রতিদিন পাকা পেঁপে খেলে খুব উপকার পাবেন।  


পাকা পেঁপে খাওয়ার অপকারিতা 


পাকা পেঁপে খাওয়ার যেমন উপকারিতা রয়েছে ঠিক তেমন নিউটনের তৃতীয় সূত্র অনুসারে কিছু অপকারিতা ও রয়েছে। আমাদের যেমন উপকার এর শর্তে আমরা পাকা পেঁপে খাই তেমন করে অপকারিতা ও আমাদের মাথায় রাখতে হবে।  চলুন তাহলে কাদের জন্যে এবং কি জন্যে এই পাকা পেঁপে অপকারিতা বয়ে আনতে পারে সেটা একটু জেনে আসি। 


পাকা পেঁপে খাওয়ার উপকারিতা ও অপকারিতা


গর্ভবতী মহিলা 


পাকা পেঁপে বিশেষ করে গর্ভবতী মহিলাদের ক্ষেত্রে একটু জটিলতা বা অপকারিতা বয়ে আনে। কেননা পেঁপের মধ্যে থাকা প্যাপাইন ও ল্যাটেক্স গর্ভবতী জরায়ু সংকোচন করে এবং মহিলাদের অসময়ে প্রসব বেদনা তৈরির করার ক্ষেত্রে দায়ী। এক্ষেত্রে পাকা পেঁপের চেয়ে কাঁচা পেঁপে বেশি ক্ষতি করে বলে সমীক্ষায় দেখা গেছে।  

অনিয়মিত হৃদস্পন্দন 


যাদের নির্দিষ্ট মাত্রায় হৃদ স্পন্দন পরিচালিত হয় না বা যারা এই অনিমিত হৃদ্স্পন্দনে ভুগছেন তাদের জন্যে পেঁপে বিপদ বয়ে আনে। যদিও পাকা পেঁপে আমাদের হার্টের জন্যে খুব ভাল কার্যকর।  কিন্তু যাদের কাছে পূর্বে থেকেই এই অনিয়মিত হৃদস্পন্দন সমস্যা রয়েছে তাদের জন্যে ক্ষতিকর হতে পারে।


বেশি পরিমান পাকা পেঁপে খেলে তাদের সমস্যা দেখা দিতে পারে। কারণ পেঁপেতে সামান্য পরিমানে সায়ানোজেনিক গ্লাইকোসাইড পাওয়া যায়। যা মানুষের পাচনতন্ত্রে হাইড্রোজেন সায়ানাইড তৈরী করতে পারে এবং হার্টের জন্যে খুব ক্ষতিকর।  


এলার্জিযুক্ত ব্যক্তি


পেঁপেতে কাইটিনেস নামক এক প্রকার এনজাইম থাকে। যা এলার্জি আছে এমন ব্যক্তির জন্যে খুব অপকার বয়ে আনে। এর কারণে এলার্জি জনিত মানুষের মধ্যে হাঁচি কাশি এবং নাক দিয়ে জল পড়ার মত সমস্যা হতে পারে।

কারণ এই কাইটিনেস নামক এনজাইম বিপরীত প্রতিক্রিয়া তৈরী করে। তাই অপকারিতার ক্ষেত্রে এলার্জিজনিত ব্যক্তিদের কাছে পাকা পেঁপে খুব সমস্যায় ফেলতে পারে।    

কিডনিতে পাথর


ভিটামিন সি আমাদের কিডনি পাথর তৈরী করতে খুব সহায়ক। তাই পেঁপেতে ভিটামিন সি রয়েছে এবং এন্টিএক্সিডেন্ট রয়েছে।  যা কিডনিতে পাথরের তৈরী করতে খুব কাজ করে। এমনকি পাথরকে বড় করতে ও সহযোগিতা করে। এবং যা প্রস্রাবের সময় ও খুব জ্বালার সাথে কষ্ট দেয়। তাই এই পাকা পেঁপে কিডনির পাথরের জন্যে অপকারী। 

সুত্র ঃ বাংলা আজতক ডট ইন 


আরও পড়ুন ঃ

পাকা পেঁপে খেলে কি গ্যাস হয়


যারা প্রতিদিন পাকা পেঁপে খেতে পছন্দ করে। বা যাদের পাকা পেঁপে খাওয়ার জন্যে খুব ভালবাসেন। তাদের মনে আবার প্রশ্ন জাগে যে এই পাকা পেঁপে কি গ্যাস তৈরী করে আমাদের পেটে। কারণ পেটের গ্যাসের সমস্যা আমাদের দেশে একটু বেশি। তাই এই চিন্তা আমাদের থাকতেই পারে। 

কিন্তু চিকিৎসা শাস্ত্রে বলছে পাকা পেঁপেতে প্যাপাইন আছে যা আমাদের খাবার কে পরিপাক করতে খুব গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। শুধু তাই নই এই পাকা পেঁপেতে ফাইবার থাকার কারণে গ্যাস এবং এসিডিটির সমস্যাকে দূর করে।  
সুত্রঃ এই সময় ডট কম 

পাকা পেঁপে খেলে কি ওজন বাড়ে


পাকা পেঁপে কিন্তু আপনার ওজন কমাতে সহায়তা করে বাড়াতে নই। এই শরীরে ওজন নিয়ে অনেকের মনে অনেক রকম প্রশ্ন থাকতেই পারে। একটি ফল কয়েকদিন নিয়মিত করলেই এই ভয়টি কাজ করে যে পাকা পেঁপে খেলে কি ওজন বাড়ে? 


এই প্রশ্ন থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্যে এই পাকা পেঁপে সম্পর্কে কি বলছে গবেষণায়।  বলছে আপনি যদি আপনার ক্যালোরি না খরচ করে ওজন কমানোর জন্যে দুশ্চিন্তায় ভুগেন তাহলে এক সপ্তাহ বরাবর আপনি যদি পাকা পেঁপে খান তাহলে আপনি সপ্তাহে ২ কিলো পর্যন্ত ওজন কমাতে পারবেন অনায়াসে। 


কারণ এই পাকা পেঁপেতে তাকে ভিটামিন এ ভিটামিন ই এবং ভিটামিন সি যা আপনার ওজন কমাতে খুব সহায়ক। আর যারা নিজের শরীর কে ডায়েট করতে চান তারা এই পাকা পেঁপে তাদের ডায়েটের জন্যে  একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে। 


কাচাঁ পেঁপে খাওয়ার নিয়ম


পাকা পেঁপে খাওয়ার উপকারিতা ও অপকারিতা এই প্রসঙ্ঘে প্রত্যেক কিছুর একটি নির্দিষ্ট নিয়ম রয়েছে। এই নিয়ম মেনে চললে অনেক গুণাবলী আমরা দেখতে পাই। আবার অনিয়মে অনেক গুণাবলী থেকে আমরা বঞ্চিত হয়ে পড়ি। কাঁচা পেঁপের ক্ষেত্রে ও টিক তাই। এই কাঁচা পেঁপে আমরা অনেক কারণে খেয়ে থাকি কেউ কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করার জন্যে কেউ হজমের জন্যে ও কাঁচা পেঁপে খেয়ে থাকি। 

কিন্তু কথা হলো কি নিয়ম মেনে কাঁচা পেঁপে খেলে আমাদের জন্যে খুব উপকারী। সেই ক্ষেত্রে প্রতিদিন দুপুরে বেলা ভাত খাওয়ার পর এবং রাত্রের বেলায় ও খাওয়ার পর ভাল করে এক টুকরো বা দুই টুকরো কাঁচা পেঁপে চিবিয়ে খেয়ে এক গ্লাস পানি পান করুন। এর পর দেখবেন এই কাঁচা পেঁপে আপনার বদহজমের সমস্যা দূর করবে এবং পেট পরিষ্কারের ক্ষেত্রে একটি অবদান রাখেন এই কাঁচা পেঁপে।

গর্ভাবস্থায় পাকা পেঁপে খেলে কি হয়


পাকা পেঁপে গর্ভবতী মহিলাদের জন্যে খুব উপকারী একটি ফল। কারণ এই গর্ভবস্থায় মেয়েদের মধ্যে দুগ্ধ সংগ্রহের ক্ষেত্রে এই পাকা পেঁপের গুণাবলী অনস্বীকার্য।  কারণ এই পাকা পেঁপেতে রয়েছে বিটা ক্যারোটিন, পটাশিয়াম ,ভিটামিন এ, বি, ও সি। এই পাকা পেঁপে গর্ভবতী মহিলাদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়িয়ে তুলে। 

পাকা পেঁপে খাওয়ার উপকারিতা ও অপকারিতা

এবং পাকা পেঁপে ছাড়া কাঁচা পেঁপে খাওয়া একদম ভাল নই এই গর্ভবতীদের জন্যে এতে করে বিপদের সম্মুখীন বেশি হতে পারে ধারণা করেছেন চিকিৎসা বিজ্ঞান। শুধু কাঁচা নই কাঁচা পাকা ও খাওয়া যাবে না। নিয়ম করে সম্পূর্ণ পাকা পেঁপে পরিমান মত খেলে খুব উপকার বয়ে আনে ।  

শেষ কথা পাকা পেঁপে খাওয়ার উপকারিতা ও অপকারিতা নিয়ে


পাকা পেঁপে খাওয়ার উপকারিতা ও অপকারিতা দুটোই রয়েছে। আর এই সম্পর্কে আমরা অনেক কিছু বলেছি উপকারিতা ও বলেছি আবার অপকারিতা ও বলেছি । সাবধানে এবং জেনে শুনে আমাদের এই পাকা পেঁপে বা কাঁচা পেঁপে খাওয়া দরকার।

কারন এই পাকা পেঁপে সবার জন্যে হলেও অনেক সময় অনেক সমস্যার কারনে সবার জন্যে প্রযোজ্য হয়ে উঠে না । তাই সেই ক্ষেত্রে আমাদের উপরোক্ত বিষয়গুলি জেনে পাকা পেঁপে খাবেন আশা করি আর আপনার কোন সমস্যা হবে না । তাই ভাল থাকবেন সুস্থ থাকবেন । 

আগ্রহের সহিত জিজ্ঞাসিত প্রশ্নাবলী (FAQ)


প্রতিদিন কি পরিমান পাকা পেঁপে খাওয়া উচিত ?
প্রতিদিন মাঝারি সাইজের বাটি করে এক বাটি পাকা পেঁপে খাওয়া উচিত। একজন ডায়বেটিকস
আছে এমন ব্যাক্তিরাও খেতে পারবেন । 


পাকা পেঁপে কি আমাদের কোন ক্ষতি বয়ে আনে ? 

পাকা পেঁপে আমাদের ক্ষতি করতে পারে যদি অতিরিক্ত পরিমান হয়ে যায় তখন। কারন পাকা

পেঁপে তে ভিটামিন সি রয়েছে । যা অধিক পরিমানে খেলে কিডনিতে পাথর জমার সম্ভবনা রয়েছে ।

কারন বেশি পরিমান ভিটামিন সি কিডনির পাথর জমাতে সহায়তা করে। 


খালি পেটে কি পাকা পেঁপে খাওয়া যায় ?

হ্যা অবশ্যই খাওয়া যায় । এবং এই খালি পেটে পাকা পেঁপে খেলে আপনার অনেক ক্ষন ধরে

ক্ষুধা লাগবে না যা আপনার হার্টকে সুস্থ রাখতে সহায়তা করে। এবং ক্যালোরির ঘাটতি পুরন করবে । 


পাতলা পায়খানা সময় কি পাকা পেঁপে খাওয়া যাবে ?
পাতলা পায়খানার সময় পাকা পেঁপে নই কাঁচা পেঁপে ই বেশির ভাগ উপকারী বলে ধরে নেওয়া হয়।
এই কাঁচা পেঁপে কিন্তু পাতলা পায়খানা বন্ধ করার জন্যে খুব ভাল ।  

এই পোস্টটি পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন

পূর্বের পোস্ট দেখুন পরবর্তী পোস্ট দেখুন
এই পোস্টে এখনো কেউ মন্তব্য করে নি
মন্তব্য করতে এখানে ক্লিক করুন

সবারজন্যে.কম এর নীতিমালা মেনে এ কমেন্ট করুন। প্রতিটি কমেন্ট রিভিউ করা হয়।

comment url

এইটা একটি বিজ্ঞাপন এরিয়া। সিরিয়ালঃ ১