মালয়েশিয়া ফ্যাক্টরি ভিসা বেতন কত এবং কন্সট্রাকশন কাজের মিস্ত্রি হেলপার বেতন কত

মালয়েশিয়া ফ্যাক্টরি ভিসা বেতন কত

মালয়েশিয়া ফ্যাক্টরি ভিসা বেতন কত | মালয়েশিয়া মানুষের স্বপ্নের দেশ হয়ে উঠেছে বর্তমানে । কারণ সেই দেশে এখন কাজের ও খুব চাহিদা রয়েছে বেশি । এদের শ্রমবাজার এখন খুব উন্নত যার কারণে বাংলাদেশিদের বৈদেশিক অর্থ উপার্জনের জন্যে মালয়েশিয়ায় কেন্দ্র হয়ে উঠেছে । মালয়েশিয়ায় অনেক কর্মসংস্থানের জন্যে বর্তমানে ভিসা দিয়েছেন ।

সুচীপত্রঃতাই আমরা আজকের এই আর্টিকেলে মালয়েশিয়া ফ্যাক্টরি ভিসা বেতন কত, মালয়েশিয়া সুপার মার্কেট বেতন কত এবং মালয়েশিয়া কনস্ট্রাকশন কাজের বেতন কত এই নিয়ে আজকের কথাবার্তা থাকছে এবং ভাল কিছু ধারণা দেওয়ার চেষ্টা করবো । সঙ্গে থাকবেন দয়া করে আমরা প্রিয় পাঠক বন্ধুরা ।

মালয়েশিয়া সুপার মার্কেট ভিসা বেতন কত

মালয়েশিয়া যাওয়ার জন্যে আমাদের দেশের মানুষেরা সহসা উন্মুখ হয়ে থাকে । যার দরুন মালয়েশিয়ার যেকোন কাজের ভিসার কাজের সুযোগ পেলেই হুমড়ি খেয়ে পড়ে । মালয়েশিয়া ফ্যাক্টরি ভিসার বেতন নিয়ে বেশির ভাগ মানুষের চাহিদা বেশি থাকে ।


মালয়েশিয়া সুপার মার্কেট ভিসা বেতনের দিকেও মানুষের লক্ষ্য থাকে অনেক । কারণ মালয়েশিয়া সুপার মার্কেটের ভিসার বেতন হিসেবে ভাল পাওয়া যায় । কারণ এই সুপার মার্কেটের কাজের জন্যে তেমন বিশেষ কাজ জানার প্রয়োজন পড়েনা ।


যার দরুন মানুষের মধ্যে মালয়েশিয়া সুপার মার্কেট ভিসা বেতন কত এই নিয়ে চাহিদা দিন দিন বাড়ছে । এর মধ্যে নিজের দেশের তেমন কর্মের যোগান বাংলাদেশ সরকার দিতে পারছে না । তাই দিনে দিনে মালয়েশিয়া গামী যাত্রীদের মধ্যে সুপার মার্কেটের কাজের প্রবণতা বেশি দেখা যাচ্ছে । 


এখন কথা হলো মালয়েশিয়া সুপার মার্কেট ভিসা বেতন কত হতে পারে । সরকারি ভাবে যারা মালয়েশিয়া পাড়ি দিয়েছে তাদের বেতন ৪০ হাজার টাকা থেকে ৫০ হাজার টাকা পর্যন্ত হয়ে থাকে নতুন অবস্থায় । তার কারণ হলো যারা সুপার মার্কেটের ভিসায় মালয়েশিয়া যায় তাদের থাকা খাওয়া কোম্পানি বহন করছে । 


এই ক্ষেত্রে আপনার মোটামোটি টাকা হাতে থেকেই যাচ্ছে । আবার অভিজ্ঞতা এবং পুরোনো মানুষ হলে তাদের সুপার মার্কেট ভিসা বেতন আরো অনেক বৃদ্ধি হয়ে যায় । মালয়েশিয়া সুপার মার্কেট ভিসায় ভাল বেতনের অধিকারী হওয়া যায় ।


মালয়েশিয়া ফ্যাক্টরি ভিসা বেতন কত

মায়েশিয়ার ভিসার জন্যে সবার মন উচাটন হয়ে থাকে । কারন দক্ষিণ পূর্ব এশিয়ার এই উন্নত দেশটিতে বর্তমানে অনেক রকম প্রোডাক্টের ফ্যাক্টরি তৈরী হয়েছে । তাই বাংলাদেশিদের আনাগুনা খুব বেড়ে গেছে ফ্যাক্টরি ভিসার জন্যে । কিন্তু ফ্যাক্টরি ভিসায় যাওয়ার জন্যে অনেক রকম মাধ্যেম রয়েছে । 

ভিবিন্ন এজেন্সি এবং দালালের মাধ্যেম যাওয়া যায় । তবে সরকারি ভাবে ও যাওয়ার ব্যবস্থা রয়েছে । আপনারা যারা সরকারি ভাবে যাওয়ার চেষ্টাই রয়েছেন তারা অনলাইনে আবেদন করতে পারেন । আবার এজন্সি বা দালালের মাধ্যেম গেলে খরচ অনেকটা বেশি লেগে যায় ।  


তবে মালয়েশিয়া ফ্যাক্টরি ভিসা বেতন কত তা জেনে যাওয়া দরকার । আমাদের এই নিবন্ধে আমরা মালয়েশিয়া ফ্যাক্টরি ভিসা বেতন কত তা বলার চেষ্টা করছি যাতে করে আপনাদের সুবিধা হয় । মালয়েশিয়া ফ্যাক্টরি ভিসা বর্তমানে ৪৫ হাজার টাকা থেকে ৫০ হাজার টাকা বেতনে কাজ পাওয়া যাচ্ছে।


মালয়েশিয়া ফ্যাক্টরি ভিসার বেতন হিসেবে এই টাকা অনেক বলে মনে করা হয় । কারণ ফ্যাক্টরি ভিসার বেতনের সাথে থাকা খাওয়ার ফ্যাক্টরির মালিকরা দিয়ে থাকেন । সেক্ষেত্রে এই ফ্যাক্টরি ভিসা বেতন অনেক ভাল । 


তবে অভিজ্ঞতা সম্পন্ন ব্যক্তিদের ক্ষেত্রে বেতন বেশি পাওয়া যায় বা দিয়ে থাকেন । তবে আপনার মালয়েশিয়া ফ্যাক্টরি ভিসা বেতন কত তা জেনে শুনে বুজে যাওয়া অত্যন্ত মঙ্গল বলে মনে করা হয় । কারণ এজেন্সি এবং দালালের মাধ্যেম ফ্যাক্টরির ভিসা বেতন অনেক ক্ষেত্রে তারতম্য হয়ে থাকতে পারে ।

মালয়েশিয়া ফ্যাক্টরি ভিসা 2024

বর্তমানে মালয়েশিয়ার ভিসা খুললেও আমরা দেখেছি আমাদের দেশের জন্যে গত বছরের সময় ভিসা বন্ধ করে দিয়েছিল মালয়েশিয়ার সরকার । কিন্তু ২০২৪ সালে কিছুদিন আগে আবার মালয়েশিয়া ফ্যাক্টরি ভিসা খুলে দিয়েছেন । 


এই ক্ষেত্রে অনেকে এজেন্সির বা দালালের মাধ্যেম এই মালয়েশিয়ার ভিসা 2024 কিনে নিয়ে থাকে এবং অনেক টাকার বিনিময়ে । এই ভিসার মূল্য প্রায় ৪ লক্ষ থেকে ৬ লক্ষ টাকা পর্যন্ত লেগে যায় । 


আবার দৈর্য ধরলে কিছু সময়ের ব্যবধানে ৪ থেকে ৫ লক্ষ টাকার মধ্যেও যাওয়া যায় । কারণ মায়েশিয়ার ফ্যাক্টরি ভিসার চাহিদা এখন দিন দিন বেড়ে যাচ্ছে । আর ভিসা খরচ ও বাড়ছে । মালয়েশিয়ার ফ্যাক্টরি ভিসার সুযোগ সুবিধা পাওয়া যায় বেশি । 

মালয়েশিয়া কনস্ট্রাকশন কাজের মিস্ত্রি এবং হেলপার ভিসা বেতন কত

মালয়েশিয়ার কয়েকটি চাহিদা পূর্ণ ভিসা রয়েছে। তারমধ্যে মধ্যে মালয়েশিয়া ফ্যাক্টরি ভিসা বেতন কত এবং মালয়েশিয়া কনস্ট্রাকশন কাজের ভিসা বেতন কত এই সম্পর্কে মানুষ বেশি খুঁজে থাকে । 

লয়েশিয়ার ফ্যাক্টরি ভিসার সাথে মালয়েশিয়া কনস্ট্রাকশন কাজের ভিসার ও চাহিদা বেড়েছে । কারণ এশিয়ার এই দেশ গুলির মধ্যে যেমন মিল কারখানা বৃদ্ধি পাচ্ছে তেমন কন্সট্রাকশন কাজের ভিসার জন্যে লোক নিয়ে যাচ্ছে নেপাল ভারত ও বাংলাদেশ থেকে । 

মালয়েশিয়া ফ্যাক্টরি ভিসা বেতন কত

মালয়েশিয়া কনস্ট্রাকশন কাজের ভিসা বেতন বর্তমানে ৩৫০০ থেকে ৪০০০ রিঙ্গিত । যা বাংলাদেশি টাকায় ৮০ হাজার টাকা থেকে ৯০ হাজার টাকা পর্যন্ত হয়ে থাকে । আবার নতুন হেলপারের বেতন ২ হাজার ১০০ রিঙ্গিত থেকে ২ হাজার ৮০০ রিঙ্গিত যা বাংলাদেশি টাকায় ৫০ হাজার টাকা থেকে ৬৫ হাজার টাকা পর্যন্ত । 


তবে এখানে কিছু কথা বলার বাকি থাকে যে, যদি অভিজ্ঞ সম্পন্ন হয় বা নির্দিষ্ট সময় হতে বেশি ওভার টাইম করা হয় সেক্ষেত্রে অনেক টাকা বেশি মালয়েশিয়া কনস্ট্রাকশন কাজের ভিসা বেতন পাওয়া যায় । 


এই সব অর্থের পরিমান গুলি ভাল কোম্পনীর কন্সট্রেশনের কাজের জন্যে পাওয়া যায় । সেক্ষেত্রে দেখে শুনে জেনে বুজে যাওয়ার পরামর্শ দেওয়া যায় ।   


আরও পড়ুনঃ কানাডা ভিসা ফি ফ্রম বাংলাদেশ

মালয়েশিয়া ফ্যাক্টরি ভিসা আবেদন করার নিয়ম 2024

মালয়েশিয়া যাওয়ার জন্যে আমরা যেমন খুব বেশি আগ্রহ প্রকাশ করি তেমন করে মালয়েশিয়া যাওয়ার জন্যে সঠিক নিয়ম গুলি জানা দরকার । কারণ আপনি এক দেশ থেকে অন্য দেশে যাবেন তার জন্যে অনেকগুলি গ্যারান্টেড কাগজপত্রের দরকার হয় । 

আবার অনেকে কিন্তু মালয়েশিয়ার ফ্যাক্টরি ভিসা যাওয়ার জন্যে আবেদন করার নিয়ম সঠিকভাবে না জানলে ভিসা ক্যান্সেল হওয়ার সম্ভবনা রয়েছে । এইক্ষেত্রে সঠিকভাবে কাগজপত্র জমা দিয়ে সরকারি ভাবে আবেদন করবেন এতে করে আপনার প্রয়োজন পড়বে হচ্ছে

  • ব্যক্তিগত এন এই ডি কার্ড
  • কাউন্সিলর/ চেয়ারম্যান কর্তৃক সনদ
  • কাউন্সিলর/ চেয়ারম্যান/ প্রথম শ্রেণীর গ্যাজেটেড সরকারি কর্মকর্তার প্রশংসা পত্র
  • ব্যাংক স্টেডম্যান্ট 
  • ছবি 
  • পাসপোর্ট
  • সরকারি বা অনুমতি প্রাপ্ত মেডিকেল কর্তৃক ফিটনেস সনদ
  • সাথে তিন দিনের ট্রেনিং

উপরোক্ত কাগজপত্র গুলির সকল কপি অবশ্যই প্রয়োজন এবং এর সাথে সরকারি ভাবে আরো কিছু প্রয়োজনীয় কাগজপত্র দরকার হতে পারে । এই সব কিছু সঠিকভাবে দিয়ে আবেদন করার পর আপনার ভিসা প্রসেসিং হয়ে কয়েকদিনের মধ্যে মালয়েশিয়া ফ্যাক্টরি ভিসা হাতে পেয়ে যাবেন । 


তবে দালাল কিংবা এজেন্সির মাধ্যমে গেলে একটু খরচ বেশি পড়তে পারে । সেক্ষেত্রে সরকারি ভাবে যাওয়াটা বেশি ভাল বলে আমাদের তরফ থেকে পরামর্শ দেওয়া যায় ।

মালয়েশিয়া ফ্যাক্টরি ভিসা বেতন কত এই নিয়ে শেষ ভাষা 

মালয়েশিয়া ফ্যাক্টরি ভিসা বেতন কত এবং মালয়েশিয়া কনস্ট্রাকশন কাজের মিস্ত্রি এবং হেলপার ভিসার বেতন কত সাথে মালয়েশিয়া ফ্যাক্টরি ভিসা ২০২৪ সম্পর্কে আমরা বলার চেষ্টা করেছি । তাই আপনারা দয়া করে সরকারি সার্কুলার দেখে মালয়েশিয়া যাওয়ার চেষ্টা করবেন । আশা করি ভাল সুযোগ সুবিধা সহ ভাল বেতন ভোগ করতে পারবেন । তাই আপনার প্রবাস জীবন সুখী হউক এই কামনায় আজকের মত শেষ করছি । ধন্যবাদ আমার প্রিয় পাঠক বন্ধুরা । 
আপনার জন্যেঃ কুয়েত ভিসা দাম কত

এই পোস্টটি পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন

পূর্বের পোস্ট দেখুন পরবর্তী পোস্ট দেখুন
এই পোস্টে এখনো কেউ মন্তব্য করে নি
মন্তব্য করতে এখানে ক্লিক করুন

সবারজন্যে.কম এর নীতিমালা মেনে এ কমেন্ট করুন। প্রতিটি কমেন্ট রিভিউ করা হয়।

comment url

এইটা একটি বিজ্ঞাপন এরিয়া। সিরিয়ালঃ ১